শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
যুক্তরাজ্যে অভিবাসী কবি শেলী ফেরদৌস-এর দু’টি কাব্যগ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান  » «   বর্বরতার আলামত নষ্টে রোহিঙ্গা গ্রামে বুলডোজার  » «   ৫ দিনে সিরিয়ায় সরকারি বাহিনীর হামলায় নিহত ৪০৩  » «   শাহজালালে বিমান আটকে দিল মশা  » «   অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন প্রতিমন্ত্রী মান্নান  » «   ছড়া দখল করে বহুতল ভবন  » «   ১৫ ঘণ্টা পর সিলেটের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিকঃ শ্রীমঙ্গলে ট্রেন দুর্ঘটনায় ২ তদন্ত কমিটি  » «   বিশ্বের বিস্ময়  » «   জিহাদুন নাফস  » «   জগন্নাথপুরে ছাত্রলীগের নতুন কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল ও সভা  » «   শিক্ষক প্রাইমারির, পরিচয় দেন বিসিএস ক্যাডার  » «   তাহিপুর সীমান্তে কয়লা এবং মদ জব্দ  » «   পুলিশি হেফাজত থেকে আসামির পলায়ন, ফের গ্রেফতার  » «   ‘একুশে বাংলা কিবোর্ড’ তৈরি করলো শাবিপ্রবি  » «   শাবিপ্রবিতে র‌্যাগিংয়ের নামে নির্যাতনঃ তদন্ত কমিটি গঠন  » «  

দক্ষিণ কোরিয়ার হাসপাতালে আগুন, ৪১ জনের মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্টঃ

দক্ষিণ কোরিয়ার মিরায়াং শহরের একটি হাসপাতালে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে; আহত হয়েছে আরও বহু মানুষ।
বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৭টার পর সেজং হাসপাতালে আগুন লাগে।
হৃদরোগের চিকিৎসার জন্য বিশেষায়িত এই হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।
স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, অগ্নিকাণ্ডের সময় ওই হাসপাতাল এবং পাশের নার্সিং হোমে প্রায় দুই শতাধিক রোগী ভর্তি ছিলেন। তাদের অধিকাংশকেই নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া সম্ভব হয়।
মিরায়াং শহরের অগ্নিনির্বাপন বিভাগের প্রধান চই মান-উ বলেন, “হাসপাতাল ও নার্সিং হোম- দুই জায়গাতেই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে অন্য হাসপাতালে নেওয়ার পথে।
অগ্নিকাণ্ডে ৭০ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে, যাদের মধ্যে ১১ জনের অবস্থা গুরুতর।
জেসিওন শহরের একটি সরকারি জিমন্যাসিয়ামে অগ্নিকাণ্ডে ২৯ জন নিহতের মাসখানেক পর মিরায়াং-এ অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটল। শহরটি রাজধানী সিউল থেকে ২৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত।
২০০৮ সাল থেকে কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া সেজং হাসপাতালটিতে প্রায় ৩৫ জন চিকিৎসা কর্মী কাজ করেন বলে সাউথ গিয়ংসাং প্রদেশের কর্মকর্তারা জানান।
ঘটনাস্থলের ছবিতে রোগীদের সরিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি হাসপাতাল ভবনের চারপাশে গাঢ় ধূসর ধোঁয়া দেখা গেছে।
দক্ষিণ কোরীয় বার্তা সংস্থা ইয়োনহাপ জানিয়েছে, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কেবল নার্সিং হোম থেকেই ৯৩ রোগীকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।
ঘটনার পর প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন কর্মকর্তাদের নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেছেন বলে তার মুখপাত্র ছেয়ং ওয়া দায়ে জানিয়েছেন।
দশককালের মধ্যে দেশটিতে হওয়া ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের অধিকাংশই ধোঁয়ার বিষক্রিয়ায় মারা গেছেন বলে ধারণা দমকল কর্মীদের।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: