শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব নিলেন আরিফুল হক চৌধুরী  » «   সিম রেজিস্ট্রেশনে আর কাগজ-কলম লাগবে না  » «   টাইফুন ‘জেবি’র আঘাতে লণ্ডভণ্ড জাপান, নিহত ৯  » «   রোনালদোর বেতন তিন গুণ বেশি!  » «   দ্বিতীয়বার সিলেটের মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন আরিফ  » «   যে নামগুলো পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করবেন না  » «   ট্রাম্পের ‘প্যান্ট’ খুলে দিল যে বই  » «   নিরাপদ সড়ক আন্দোলন: ঘটনাই ঘটেনি, মামলা করে রেখেছে পুলিশ  » «   ‘অ্যাওয়ে গোল’ বাতিল করো, দাবি মরিনহো-ওয়েঙ্গারদের  » «   শহিদুলকে প্রথম শ্রেণির বন্দীর সুবিধা দিতে নির্দেশ  » «   আরপিও সংশোধন নিয়ে নির্বিকার নির্বাচন কমিশন  » «   মাহাথিরের রসিকতায় শ্রোতাদের মধ্যে হাসির রোল!  » «   দেশের বাইরে রান করাটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখি : মুশফিক  » «   দুর্দান্ত জয়ে সিপিএলের শীর্ষে মাহমুদুল্লাহরা  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে বিএনপির ২ দিনের কর্মসূচি  » «  

প্রসঙ্গঃ সালাত বা নামায

শাহরিয়ার কামালঃ

ছোটবেলায় যখন কেউ আব্বুকে আমার নামে বিচার দিতো তখন কড়া শাসন করে বলতেন, ” আজকে থেকে যেন আর বাইরে না দেখি। শুধু স্কুল আর প্রাইভেট। এছাড়া সিঁড়িতেও যেতে পারবানা। ” ব্যস! ১৪৪ ধারা জারি। মাইরের ভয় ছিলো। কিন্তু কতক্ষণ? কিভাবে বাইরে যাবো তা নিয়ে নানান ফন্দিফিকির করতাম। কখনো আব্বুকে ঘুম পাড়িয়ে, কখনোবা প্রাইভেটের নাম দিয়ে ” মাঠে ” আধিপত্য করতে চলে যেতাম।
.
আব্বুকে, আম্মুকে, শিক্ষকদের ফাঁকি দেওয়া খুবই সহজ। কতক্ষণই বা দেখে রাখবে? দুচোখ আর কতটুকুই কাভার করতে পারবে? কিন্তু ঐ সত্ত্বাকে ফাঁকি দেওয়া কি সম্ভব যাকে দৃষ্টিসমূহ আয়ত্ত্ব করতে পারেনা অথচ তিনি সম্যক দ্রষ্টা? এক কথায় ” না “।
.
ওকে ফাইন। তো আপনি কোন স্পর্ধায় তাকে ফাঁকি দেন? প্যান্ট কি আপনার সর্বদা নাপাক থাকে? অন্তরের মধ্যে সংকীর্ণতা রেখে আপনি যখন বলেন, ‘ কালকে থেকে পড়বো ‘ তখন না হয় আমরা আপনার ফাঁকিবাজিরর শিকার হলাম কিন্তু যিনি আপনার অন্তরসমূহের খবর আপনার চাইতে ভালো রাখেন তাকে কিভাবে ফাঁকি দিবেন ব্রাদার? বেশ বেশ! এখন তো আবার নতুন এক সিস্টেম পেয়ে গেলেন মুক্তমনা কলাবিজ্ঞানীদের তরফ হতে, ” সালাত আদায় করলে শারীরিক ক্ষতি হয়। ” ব্যস! এখন আপনার যুক্তি ঠেকায় কে, তাই না? আচ্ছা দুটো ঘটনা শুনেন।
.
১। উমার ( রাঃ) তখন খলিফা। ফজরের সালাতে ইমামতি করছিলেন। আকস্মিক এক আততায়ী এসে তার তরবারি দ্বারা উনাকে আঘাত করলেন। সুঠামদেহী উমার ( রাঃ) তরবারির আঘাতে আহত হয়ে তিনি মাটিতে লুটে পড়লেন।
তার স্থলে অন্য একজন এসে ইমামতি করে সালাত শেষ করলেন। জ্ঞান ফেরার পর তিনি যে প্রশ্নটা সর্বপ্রথম করেছিলেন তা হল, ” সালাত সমাপ্ত হয়েছিলো? ”
.
২। মুসআব ইবেন উমাইর ( রাঃ) কে বলা হতো মক্কার প্রিন্স। তার মত অভিজাত চালচলন তখন মক্কায় আর কারও ছিলোনা। কিন্তু কিভাবে যেন একদিন তিনি শুনলেন ঈমানের বাণী। ব্যস! তিনি চ্যাঞ্জ হয়ে গেলেন। লাইফস্টাইল পালটে ফেললেন। তবে তার ঈমান আনয়নের ব্যাপারে খুব কম মানুষই জানতো। একবার তালহা নামক এক ব্যক্তি তাকে দেখে ফেললেন সালাত আদায় করা অবস্থায়। বিন্দুমাত্র দেরী না করে জানিয়ে দিলেন সকলকে।
.
তাঁর মা তাকে নিয়ে এলেন মক্কার মুশরিক নেতাদের সামনে। বাধ্য করতে চাইলেন তাকে ঈমান ত্যাগ করতে। কিন্তু তার মুখে কুর’আনের অমৃত বাণী শুনে তাঁর মা তাঁর গালে কষে এক থাপ্পড় দিলেন। প্রহার করলেন। বাড়িতে বেঁধে রাখা হলো তাকে। তবুও তিনি ঈমান ত্যাগ করলেন না, সালাত ত্যাগ করেননি।
.
এই যে মুস’আব ( রাঃ) এর কথা বলছি উনার মৃত্যু কিভাবে হয়েছিলো জানেন? প্রথমে তাঁর ডান হাত, পরে বাম হাত কেটে গিয়েছিলো। অবশেষে বর্শার আঘাতে তিনি শাহাদাত বরণ করেন। তাঁর দাফনের জন্য যে কাপড় আনা হয়েছিলো তাতে তাঁর পা ঢাকলে মাথা বেরিয়ে যাচ্ছিলো, আবার মাথা ঢাকলে পা। একজন প্রিন্সের করুণ পরিণতি।
.
আচ্ছা কি এমন ছিলো তাদের মধ্যে যে তারা সালাতের জন্য তাদের আত্মত্যাগ দিতে প্রস্তুত ছিলেন? শুনেন, ” যারা ঈমান আনে এবং আল্লাহর স্মরণে যাদের চিত্ত প্রশান্ত হয়; জেনে রেখ, আল্লাহর স্মরণেই চিত্ত প্রশান্ত হয়। ” [ ১ ] ভাই, তাদের মধ্যে আসলে ঈমানটাই ছিলো। যে ঈমানের জন্য তাদের মৃত্যু তাদের কাছে হার মেনেছিলো। কেন ভাই, তারা শারীরিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পরেও সালাতের মাধ্যমে নিজেদের শারীরিক ক্ষতি করছিলেন? তাঁরা জানতেন, ” বিশ্বাসী আর অবিশ্বাসীদের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে সালাত ত্যাগ। ”
.
উমার ( রাঃ) তো দুনিয়ার মধ্যেই জান্নাতের সুসংবাদ পেয়েছিলেন। তবুও কেন তিনি জ্ঞান ফিরে পাওয়ার পর সালাতের খোঁজ নিলেন?
সালাফদের তাহাজ্জুদের ইতিহাস আপনাদের জানা আছে? তাহাজ্জুদ পড়তে পড়তে যাদের পা ফুলে যেতো। তাহাজ্জুদ পড়তে না পারলে যারা নিজেদের দূর্বল ঈমানের অধিকারী বলতো, এমনকি যারা তাহাজ্জুদ পড়তে না পারলে আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করতো, ” ইয়া আল্লাহ! যদি আপনার স্বরণই করতে না পারি তবে আমার মৃত্যুই শ্রেয়। ” আর আমরা কি পাঁচ ওয়াক্ত সালাত আদায় করা কে শারীরিক ক্ষতি বলছি?
.
ইতিহাস না বর্তমানে আসেন। ভাই মসজিদে একটু খেয়াল কইরেন। দেখবেন অনেক পঙ্গু, অন্ধ এসেছেন সালাত আদায় করতে। কেন? তাদের জিজ্ঞেস করলে যে উত্তরগুলো পাওয়া যায়,” আল্লাহ তো আমারে হাঁটার তৌফিক দিছে, বাঁইচা আছি আল্লাহর কাছে শুকরিয়া করমু না? ” আপনি যখন শারীরিক ক্ষতির অজুহাত দিয়ে সালাত আদায় করছেননা তখন অনেকেই আছেন যারা সালাত আদায় করার জন্য আসছেন খুড়িয়ে খুড়িয়ে হেঁটে। আমার নানা যখন মারা যাচ্ছিলেন তখনন উনার বয়স আশির উপরে ছিলো। লোকটা কখনো জামা’আতে সালাত মিস দিতেননা। শীতের ভোরে যখন আপনি, ” Oh! It’s too cold in the outside. Better to sleep than go to Mosque.” বলে কম্বল গাঁয়ে দিয়ে ঘুমোচ্ছেন তখন কোনো এক ষাটোর্ধ বুড়ো বিনা শীতের কাপড়ে কাঁপতে কাঁপতে লাঠি ভর দিয়ে মসজিদে যাচ্ছেন। উনারা জানেন, ” নিশ্চয়ই আল্লাহ মুমিনদের জান ও মাল কিনে নিয়েছেন। ” [ ২ ]
.
সালাতের শারীরিক ক্ষতির প্রসঙ্গে আসি। The American Cancer Society এর মতে, ” আধ্যাত্মিকতা এবং ধর্ম খুবই গুরুত্বপূর্ণ ক্যান্সার রোগীদের জন্য। অসুস্থতার চাপ কাটিয়ে উঠার জন্য সালাত সক্রিয় প্রাচীরশীর্ষস্থ ঢালসরূপ। বিপদাপন্ন মূহূর্তে আল্লাহর উপর ভরসা এবং প্রার্থনাই আশা আকাঙ্ক্ষার যোগান দেয় এবং কখনো কখনো প্রার্থনার মাধ্যমেই উত্তর আসে যখন মেডিকেল সাইন্স ব্যর্থ হয়ে যায়। [ ৩, ৪ ]
.
” ক্যান্সার রোগীদের জন্য ইসলামিক চিকিৎসা নিয়ে পরীক্ষা করা হয়েছে এবং এই সিদ্ধান্তে পৌঁছানো গিয়েছে যে কুর’আন তিলাওয়াতের অনেক স্বাস্থ্যগত উপকার রয়েছে। এবং এই কাজের উপর ভিত্তি করে আমরা ইসলামিক ইবাদত ( সালাত) এর উপর গুরুত্বারোপ করছি। ” [ ৫, ৬ ]
.
সালাতের বিভিন্ন মুভমেন্ট নিয়ে গবেষণা করে এই সিদ্ধান্তে আসা গিয়েছে যে, এটি শুধুমাত্র হৃৎপিন্ড, স্মৃতি, মনোযোগ, মেরুদন্ড, জ্ঞানসম্বন্ধনীয় ইন্দ্রিয়েরই উন্নতি করেনা বরং পুরো শরীরই সালাতের বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গির জন্য উপকৃত হচ্ছে। [ ৭ ]
.
সালাতের কার্যকলাপ স্নায়বিক ঘাটতি ও কংকালের ক্ষতি রোধে সাহায্য করে এবং সালাত অত্যন্ত কার্যকর মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্যের জন্য। [ ৮ ]
.
গবেষণায় প্রমাণিত যে, সালাতের শারীরিক কার্যকলাপ উচ্চ পর্যায়ের উদ্বেগমুক্ততা, দুশ্চিন্তা হ্রাসকরণ, ফোকাস বজায় রাখা এবং শরীর ও মনের সাম্যাবস্থা বৃদ্ধি করে। [ ৯-১১ ]
.
” সিজদাহর সবচাইতে লক্ষ্যণীয় নড়নচড়ন হচ্ছে ঐচ্ছিক পেশী, পৃষ্ঠপেশী, পেরিনিয়াম পেশির বারংবার ব্যবহার কিরা হয়। ” [ ১২ ]। নিয়মিত সালাত আদায় করলে বাত প্রদাহ হতে আরোগ্য লাভ করা যায়। [ ১৩ ]
.
সিস্টোলিক ও ডায়াস্টোলিক ব্লাড প্রেসার উল্লেখযোগ্য হারে কমে যায় নিয়মিত সালাত আদায় করলে। [ ১৪ ]
.
” পেশী সংকোচনের জন্য দায়ী হচ্ছে ‘ গ্লাইকোজেনেসিস ‘। সালাতের সময় বিপাকীয় হার বেড়ে যায় ফলে অক্সিজেন এবং পরিপোষক পদার্থের হ্রাস ঘটে। এর ফলে ‘ ভেসোডিলেশন ‘ এর উদ্ভব ঘটে ও রক্ত ধমনীর কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায় এবং এর ফলে রক্ত পুনরায় হৃৎপিন্ডে চলে যেতে পারে। এই সাময়িক সময়ে হৃৎপিন্ডকে অধিক কাজ করতে হয়, হৃৎপেশির ও হৃৎপেশির সঞ্চালনের উন্নতি ঘটে। ” [ ১৫ ]
.
” রামাদান মাসে ইনসুলিন ও গ্লুকোজ এর মাত্রা নিম্ন থাকে ক্ষুধার জন্য কিন্তু যখনই ইফতার করা হয় তখন এই মাত্রা পূর্বাবস্থায় ফিরে যায় ও ঘন্টাখানেকের মধ্যে রক্তের গ্লুকোজ উচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে যায় এবং সালাত শুরু হওয়ার সাথে সাথে পেশী ও পাকস্থলীতে প্রবাহিত হয়। এই প্রবাহিত গ্লুকোজ কার্বন-ডাই-অক্সাইড ও পানিতে বিপাক হয় সালাতে নাড়াচাড়ার ফলে। এর ফলে নমনীয়তা বৃদ্ধি পায়, ব্যস্ততা দূরীভূত হয়, চাপ কমায় এবং অতিরিক্ত ক্যালরি শরীর হতে দূর করে। তাছাড়া তারাবীর ২০ রাকা’আত সালাত সহনীয় শক্তি বৃদ্ধি করে। ” [ ১৬-১৯ ]
.
” নিয়মিত সালাত আদায় করলে টেন্ডন পেশীর শক্তি বৃদ্ধি পায়, কার্ডিওভাস্কুলার সঞ্চিত হয়, পেশীর শক্তি ও নমনীয়তা বৃদ্ধি পায় ” [ ২০-২২ ]
.
” নিয়মিত যারা সালাত আদায় করে তারা বর্ধিত শিরা রোগে খুবই কম আক্রান্ত হন। ” [ ২৩ ] তাছাড়া সিজদাহর সময় যখন মাথা নিচু করা হয় তখন ব্লাড সাপ্লাই বেড়ে যায় এবং ব্লাড সাপ্লাই বাড়ার ফলে স্মৃতি, একাগ্রতা, জ্ঞানসমৃদ্ধ অন্যান্য বিষয় বৃদ্ধি পায়। ” [ ২৪ ]
.
সিজদাহর সময় সাইনাসের নিষ্কাশন হয়, যার ফলে ঐ ব্যক্তির সাইনুসাইটিসে আক্রান্ত হওয়ার সমম্ভাবনা কম। [ ২৫ ]

হার্ভাড ইউনিভার্সিটির রিসার্চার ‘ বেনসনের ‘ মতে, ” তারাবীর সালাতের কুর’আন তিলাওয়াত শরীরে গভীর প্রভাব ফেলে। এই পেশীবহুল কার্যকলাপ নিবিড় চিন্তার সঙ্গে সম্পৃক্ত যার উদ্বেগমুক্ত প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয় এবং এর ফলে রক্তচাপ হ্রাস পায়, অক্সিজেনের খরচ কমে যায় এবং হৃৎপিন্ড ও শ্বাসযন্ত্রের ক্রিয়া কমে যায়। [ ২৬ ]
.
কুর’আন তিলাওয়াত মনোযোগ দিয়ে শুনে লাভবান হওয়ার এই ফর্মুলা আল্লাহ ১৪০০ বছর আগে তার কালামে জানিয়ে দিয়েছেন, ”
যখন কুরআন পাঠ করা হয় তখন তোমরা মনোযোগের সাথে তা শ্রবণ করবে এবং নীরব নিশ্চুপ হয়ে থাকবে, হয়তো তোমাদের প্রতি দয়া ও অনুগ্রহ প্রদর্শন করা হবে। ” [ ২৭ ]
.
” রুকুর সময় কটিদেশীয় পৃষ্ঠ বাঁকানো হয় ও উভয় পা সোজা থাকে ফলে কটিদেশীয় পৃষ্ঠের ও উরুর সকল প্রধান পেশীগুলো প্রসারিত হয়। তাছাড়া প্রতিনিয়ত রুকু করার ফলে ঐসকল পেশীগুলোর শক্তি বৃদ্ধি পায়। ” তাছাড়া রুকু করার ফলে রক্ত শরীরের উপরের অংশ যথাঃ মাথা, চোখ, কান, নাক ও শ্বাসযন্ত্রে প্রবাহিত হয়। [ ২৮ ]
.
সালাম ফিরানোর মূহূর্তে একবার ডান কাঁধ বরাবর আরেকবার বাম কাঁধ বরাবর আড়াআড়িভাবে ঘাড় ফেরাতে হয়। পর্যাবৃত্তিক ঘাড় ফেরানোর ফলে স্নায়বিক কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায়। [ ২৯ ]
.
খুব খেয়াল করে মনে রাইখেন, ” আল্লাহ বিশ্বজাহানের মুখাপেক্ষী নন। ” [ ৩০ ] আপনি এখন শারীরিক সমস্যা, প্যান্টগত সমস্যা যেই সমস্যায় থাকেন না কেন তাঁর ইবাদত না করলে তাঁর কোনো ক্ষতি হবেনা। তবে, যেহেতু উনি আপনাকে সৃষ্টি করছেন, আর কিয়ামত হবেই, তাই আবারও খুব খেয়াল কইরা মনে রাখেন যখন বলা হবে , ” তোমাদেরকে কিসে জাহান্নামে নিক্ষেপ করেছে?َ তারা বলবেঃ আমরা সালাত আদায় করতামনা ” [ ৩১, ৩২ ]
.
.
রেফারেন্সঃ
___________
.
1. Ar- Ra’d [ 28 ]
2. At Taubah [ 111 ]
3. Peteet, J.R. and M.J. Balboni, Spirituality and religion in oncology. CA: a cancer journal for clinicians, 2013.63(4): p. 280-289.
4. Society, A.C. http://www.cancer.org/. 2016 [cited 2016 2 January]
5. Mahjoob, M., et al., The effect of Holy Quran voice on mentalhealth. Journal of religion and health, 2016. 55(1): p. 38-42
6. Suhami, N., M.B. Muhamad, and S.E. Krauss, Why Cancer Patients Seek Islamic Healing. Journal of religion and health, 2015: p. 1-12.
7.Mohammed Faruque Reza, M. Y. U., MD; Yukio Mano, MD, PhD, Evaluation of a new physical exercise taken from salat (prayer) as a short-duration and frequent physical activity in the rehabilitation of geriatric and disabled patients. Annals of Saudi Medicine, 23 January 2002., 2002;22(3-4):177-180.
8.Muscle Activity Estimation through Surface EMG Analysis during Salat. May 2015 Conference: 2nd International Conference on Electrical Engineering and Information Communication Technology (ICEEICT
2015)
9. Chang KM, Lo PC. F-VEP and Alpha-suppressed EEG-physiological evidence of inner-light perception during Zen meditation. Biomed Eng Appl Basis Communicat 2006;18:1–7
10. Kasamatsu A, Hirai T. An electroencephalographic study on the zen meditation (Zazen). Psychiatry Clin Neurosci 1966;20:315–336 [PubMed]
11. Lee SH, Ahn SC, Lee YJ, et al. Effectiveness of a meditation-based stress management program as an adjunct to pharmacotherapy in patients with anxiety disorder. J Psychosom Res 2007;62:189–195 [PubMed]
12. Al-Ghazal, S., Medical Miracles of the Qur’an. 2013: Kube Publishing Ltd.
13. Attaining Health Through Salah & Ablution. 2015: Xlibris Corporation
14. Doufesh, H., et al., Assessment of heart rates and blood pressure in different Salat positions. Journal of Physical Therapy Science, 2013. 25(2): p. 211-214.
15. Equanimeous, N.-j., H. Mindfulness, and Y.Khobragade, Meditation as primary intervention strategy in prevention of cardiovascular diseases. International Journal, 2016. 4(1): p. 12.
16. Javeed, Q.S., Effect of Taraweeh Prayers On Mental Health And Self Control. Laxmi Book Publication, 2013.
17. Sadiya, A., et al., Effect of Ramadan fasting on metabolic markers, body composition, and dietary intake in Emiratis of Ajman (UAE) with metabolic syndrome.Diabetes Metab Syndr Obes, 2011. 4: p. 409-16
18. Mohktar, M.S. and F. Ibrahim. Assessment of Salat taraweeh and fasting effect on body composition. in 4th Kuala Lumpur International Conference on Biomedical Engineering 2008. 2008. Springer
19. El-Taher, A.M. and B.M. Zabut, Effect of Ramadan Fasting on Anthropometric Measures andsome Biochemical Parameters among Type2 Diabetic Patients in Gaza
Governorate, Gaza Strip.
20 Chokkhanchitchai, S., et al., The effect of religious practice on the prevalence of knee osteoarthritis.Clinical rheumatology, 2010. 29(1): p. 39-44
21. Kim, Y.-J., L.J. Bonassar, and A.J. Grodzinsky, The role of cartilage streaming potential, fluid flow and pressure in the stimulation of chondrocyte biosynthesis during dynamic compression. Journal of biomechanics, 1995. 28(9): p. 1055- 1066.
22. Kiviranta, I., et al., Articular cartilage thickness and glycosaminoglycan distribution in the young canine knee joint after remobilization of the immobilized limb. Journal of orthopaedic research, 1994. 12(2): p. 16
23. Syed, I., The Medical Benefits of Taraweeh Prayers. 2011.
24. Ayād, A. and Ǧ. Ḫakam, Healing Body & Soul: Your Guide to Holistic Wellbeing Following Islamic Teachings. 2008: Internat. Islamic Publishing House.
25. Sayeed, S.A. and A. Prakash, The Islamic prayer (Salah/Namaaz) and yoga togetherness in mental health. Indian journal of psychiatry, 2013. 55(Suppl 2):p. S224.
26. Benson, H., Timeless healing. 2009: Simon and Schuster.
27. Al-A’raf : [ 204 ]
28. Theraphy Services and Maulana, M.A., Muslim Chaplain & Imam., Taking care of your health Information leaflet for Muslim Patients Physiotherapy and Prayer (Salah), B.T. Hospitals, Editor. 2011.
29. Sayeed, S. A.; Prakash, A., The Islamic prayer (Salah/Namaaz) and yoga togetherness in mental health.Indian J Psychiatry 2013, 55 (Suppl 2), S224-30.
30. Aal-e-Imraan: [ 97]
31, 32. Al Muddhatthir: [ 42, 43 ]

সংবাদটি শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: