সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
সিম রেজিস্ট্রেশনে আর কাগজ-কলম লাগবে না  » «   টাইফুন ‘জেবি’র আঘাতে লণ্ডভণ্ড জাপান, নিহত ৯  » «   রোনালদোর বেতন তিন গুণ বেশি!  » «   দ্বিতীয়বার সিলেটের মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন আরিফ  » «   যে নামগুলো পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করবেন না  » «   ট্রাম্পের ‘প্যান্ট’ খুলে দিল যে বই  » «   নিরাপদ সড়ক আন্দোলন: ঘটনাই ঘটেনি, মামলা করে রেখেছে পুলিশ  » «   ‘অ্যাওয়ে গোল’ বাতিল করো, দাবি মরিনহো-ওয়েঙ্গারদের  » «   শহিদুলকে প্রথম শ্রেণির বন্দীর সুবিধা দিতে নির্দেশ  » «   আরপিও সংশোধন নিয়ে নির্বিকার নির্বাচন কমিশন  » «   মাহাথিরের রসিকতায় শ্রোতাদের মধ্যে হাসির রোল!  » «   দেশের বাইরে রান করাটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখি : মুশফিক  » «   দুর্দান্ত জয়ে সিপিএলের শীর্ষে মাহমুদুল্লাহরা  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে বিএনপির ২ দিনের কর্মসূচি  » «   আদালতকে খালেদা জিয়া : ‘আমার অবস্থা খুবই খারাপ’  » «  

জাফর ইকবালকে হত্যা করতে এক বছর ধরে অনুসরণ করে ফয়জুল

স্টাফ রিপোর্টারঃ
জনপ্রিয় লেখক ও শিক্ষাবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলা চালিয়ে তাকে হত্যা করতে এক বছর ধরে অনুসরণ করে হামলাকারী ফয়জুল হাসান ওরফে শফিকুর। এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য জানিয়েছে তদন্ত সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র।
আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওই সূত্র আরও জানায়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালকে হত্যার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে হামলার দিন (৩ মার্চ) শনিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে যায় হামলাকারী ফয়জুল। সকালে ক্যাম্পাসে গিয়ে হামলার ছক কষে সে। এরপর ওইদিন বিকেলে আবার ক্যাম্পাসে গিয়ে জাফর ইকবালে ওপর হামলা চালায়।
জিজ্ঞাসাবাদে ফয়জুল র্যাব ও পুলিশ কর্মকর্তাদের জানায়, সকালে সে ক্যাম্পাসে গিয়ে দেখতে পায় একটি অনুষ্ঠান চলছে। সেখানে জাফর ইকবালকে ঘিরে অনেক শিক্ষার্থীরা রয়েছে। শিক্ষার্থীদের সকলের পরনে কালো টি-শার্ট। এরপর সে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন শেখপাড়ার বাসায় গিয়ে কালো টি-শার্ট পরে ও ছুরি নিয়ে আবার ক্যাম্পাসে যায়। বিকেলে মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠান চলাকালে অধ্যাপক জাফর ইকবালের ওপর হামলা চালায় ফয়জুল।
সিলেট মহানগর পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়াও জানিয়েছেন, শনিবার বিকেলে হামলার আগে ওইদিন সকালে ফয়জুল আরেকবার ক্যাম্পাসে যায় বলে তারা তদন্তে জানতে পেরেছেন। তবে এই হামলায় ফয়জুল একাই অংশ নেয়, না আর কেউ ছিলে তা এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ। জানা যায়নি ফয়জুল কোনো জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ত কি না।
পুলিশের ধারণা, জঙ্গিবাদী আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়েই স্বঃপ্রণোদিত এ হামলা চালিয়েছে ফয়জুল। প্রায় একই ধারণা র্যাব-৯ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদের।
পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া বলেন, ফয়জুল অনেকদিন থেকে জঙ্গিবাদী চেতনায় বিশ্বাসী ছিল বলে এখন পর্যন্ত মনে হচ্ছে। সে এখনো অসুস্থ। হাসপাতালে আছে। সুস্থ হওয়ার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরও তথ্য পাওয়া যাবে বলে আশা করছি।
এ ঘটনায় আরও একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। তবে তার নাম পরিচয় জানা যায়নি। এছাড়া রোববার রাতেই মহানগরের জালালাবাদ থানা পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন ফয়জুলের বাবা মাওলানা আতিকুর রহমান ও মা মিনারা বেগম। তারা বর্তমানে গোয়ান্দা পুলিশের কাছে রয়েছেন বলে জানা গেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: