মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
সিম রেজিস্ট্রেশনে আর কাগজ-কলম লাগবে না  » «   টাইফুন ‘জেবি’র আঘাতে লণ্ডভণ্ড জাপান, নিহত ৯  » «   রোনালদোর বেতন তিন গুণ বেশি!  » «   দ্বিতীয়বার সিলেটের মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন আরিফ  » «   যে নামগুলো পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করবেন না  » «   ট্রাম্পের ‘প্যান্ট’ খুলে দিল যে বই  » «   নিরাপদ সড়ক আন্দোলন: ঘটনাই ঘটেনি, মামলা করে রেখেছে পুলিশ  » «   ‘অ্যাওয়ে গোল’ বাতিল করো, দাবি মরিনহো-ওয়েঙ্গারদের  » «   শহিদুলকে প্রথম শ্রেণির বন্দীর সুবিধা দিতে নির্দেশ  » «   আরপিও সংশোধন নিয়ে নির্বিকার নির্বাচন কমিশন  » «   মাহাথিরের রসিকতায় শ্রোতাদের মধ্যে হাসির রোল!  » «   দেশের বাইরে রান করাটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখি : মুশফিক  » «   দুর্দান্ত জয়ে সিপিএলের শীর্ষে মাহমুদুল্লাহরা  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে বিএনপির ২ দিনের কর্মসূচি  » «   আদালতকে খালেদা জিয়া : ‘আমার অবস্থা খুবই খারাপ’  » «  

মসজিদের জায়গা নিয়ে সংঘর্ষ, নিহত ২, আটক ১০

গোয়াইনঘাট সংবাদদাতাঃ
সিলেটের গোয়াইনঘাটে মসজিদের জায়গা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে দুইজন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছেন। নিহতরা গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন বলে জানা গেছে।
এ ঘটনায় ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া সংঘর্ষে ব্যবহৃত এক নলা একটি বন্দুকও উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনও কোনো মামলা দায়ের হয়নি।
গোয়াইনঘাটের সালুটিকর বাজার জামে মসজিদের জায়গার মালিকানা নিয়ে উপজেলার মিত্রিমহল ও বহর গ্রামের লোকজনের মধ্যে শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ সংঘর্ষ হয়।
নিহতরা হলেন, উপজেলার মিত্রিমহল গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে মনাই মিয়া ও আজিজুল ইসলামের ছেলে রুমেল আহমদ।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সালুটিকর বাজার জামে মসজিদের দখলে থাকা একখণ্ড ভূমি নিয়ে শুক্রবার মসজিদের মোতাওয়াল্লী মিত্রিমহল গ্রামের আবদুস সোবহান এবং বহর গ্রামের জামাল উদ্দিন ও ফখর উদ্দিনের বাকবিতণ্ডা হয়। এ নিয়ে দুই গ্রামের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।
শনিবার সকালে উত্তেজনা নিরসনের জন্য গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল হাকিম চৌধুরী, স্থানীয় নিদরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল হাসান আমিরুলসহ এলাকার গণমান্য লোকজন মিত্রিমহল গ্রামে যান। আলোচনার এক পর্যায়ে দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এ সময় বহর গ্রামের জামাল উদ্দিন পক্ষের লোকজন বন্দুক দিয়ে গুলি ছুড়লে সংঘর্ষ বাধে।
এতে ঘটনাস্থলেই মিত্রিমহল গ্রামের আবদুস সোবহান পক্ষের মনাই মিয়া ও রুমেল আহমদ গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। আহত হন অন্তত ৩০ জন।
আহতদের মধ্যে অন্তত ২০ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে গোয়াইনঘাট থানা ও সালুটিকর ফাঁড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
গোয়াইনঘাট থানার ওসি (তদন্ত) হিল্লোল রায় জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। নিহত দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
সিলেটের পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামার জানান, এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহ ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। গ্রামবাসীকে শান্তনা দিয়ে তদন্ত সাপেক্ষে এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেয়া হয়েছে।
গোয়াইনঘাট থানার ওসি (তদন্ত) হিল্লোল রায় জানান, সংঘর্ষে ব্যবহৃত একটি এক নলা বন্দুক উদ্ধার এবং সন্দেহভাজন ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া মামলার প্রস্তুতি চলছে।
এ ব্যাপারে সালুটিকর বাজার মসজিদের মুতাওয়াল্লি মো. আব্দুস সুবহান সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার সময়ে বহর গ্রামের ৬/৭জনের হাতে বন্দুক ছিল।
এদিকে উদ্ধার বন্দুকটির মালিক বহর গ্রামের জামাল উদ্দিন আহমদের মোঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: