শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: শেষ মূহুর্তের দুই গোলে চমক দেখালো ব্রাজিল  » «   বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮ঃ আর্জেন্টিনাকে ৩ গোলে বিধ্বস্ত করে দ্বিতীয় রাউন্ডে ক্রোয়েশিয়া  » «   ওয়ার্ল্ড কাপ ২০১৮: নক আউট পর্বের আশা বাঁচিয়ে রাখলো স্পেন  » «   হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর অস্ট্রেলিয়া-ডেনমার্ক ম্যাচ ড্র  » «   মেসি সর্বকালের সেরা: রাকিটিচ  » «   বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: রোনালদোর গোলে দ্বিতীয় রাউন্ডের পথে পর্তুগাল  » «   বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮ঃ সৌদি আরবকে হারিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে উরুগুয়ে  » «   কমলগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি আরো ভয়াবহঃ তিনজনের লাশ উদ্ধার  » «   নগরীতে বন্ধুদের ছুরিকাঘাতে কিশোর খুন  » «   বাংলাদেশী নাজমা খানের আহ্বানে হিজাব পরছেন অন্য ধর্মাবলম্বীরাও  » «   কেমন আছেন সালাহ?  » «   সিলেট সিটি নির্বাচন ৩০ জুলাই  » «   তৃতীয়বার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংস  » «   নগরীর অভিজাত শপ-রেস্টুরেন্টে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা  » «   রাশিয়ার মিসাইলেই বিধ্বস্ত হয় মালেশিয়ার বিমান: তদন্ত দল  » «  

মসজিদে যাওয়ার সময় ফিলিস্তিনি বিজ্ঞানীকে গুলি করে হত্যা

সিলেট সংলাপ ডেস্কঃ
মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে ফিলিস্তিনি বিজ্ঞানী ফাদি আল বাতশকে গুলি করে হত্যা করেছে দুই অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্ত। গতকাল শনিবার ফজরের নামাজের জন্য মসজিদে যাওয়ার সময় ওঁৎ পেতে থাকা দুই হামলাকারী তাকে খুব কাছ থেকে গুলি করে। নিহতের পরিবার এই হত্যাকাণ্ডের জন্য ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদকে দায়ী করেছে।
কুয়ালালামপুরের একটি প্রসিদ্ধ আবাসিক এলাকায় বসবাসকারী ফাদি আল বাতশ (৩৫) ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের একজন সদস্য ছিলেন। তার বাবা এই হত্যাকাণ্ডের জন্য মোসাদকে দায়ী করেছেন এবং কারা তাকে হত্যা করেছে তা জানতে দ্রুত তদন্ত শুরু করার জন্য মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষের প্রতি অনুরোধ করেছেন।
হামাস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, শহীদ ফাদি গাজা উপত্যকার জাবালিয়া এলাকার বাসিন্দা।
হামাসের মুখপাত্র হাজেম কাসেম বলেছেন, ফাদি আল বাতশ হামাসের একজন সদস্য ছিলেন। তিনি একজন বিশিষ্ট বিজ্ঞানী ছিলেন এবং জ্বালানি খাতের উন্নয়নে ব্যাপক অবদান রেখেছেন। গাজার ইসলামিক জিহাদ আন্দোলনের একজন সিনিয়র নেতার আত্মীয় ছিলেন বলে ফিলিস্তিনি ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়েছে।
কুয়ালালামপুরের দাতুক সেরি মানসুর লাজিমের পুলিশ প্রধান জানান, সেতাপাক জেলার একটি আবাসিক ভবনের সামনে দুই হামলাকারী ফাদি আসার অপেক্ষায় প্রায় ২০ মিনিট ধরে ওঁৎ পেতে ছিল। তারা তাকে লক্ষ্য করে ১০টি বুলেট ছোড়ে। তার মধ্যে চারটির আঘাতে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।
পুলিশ প্রধান গুলিগুলো ফাদির শরীর ও মাথায় বিদ্ধ হয় উল্লেখ করে বলেন, তারা সন্ত্রাসবাদসহ হত্যার সব দিক সম্পর্কে তদন্ত করবেন।
মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূত আনোয়ার এই আল-আগার বরাত দিয়ে নিউ স্ট্রেইটস টাইমস পত্রিকা জানিয়েছে, নিহত ফাদি আল বাতশ তার মসজিদের সানি ইমাম ছিলেন। তিনি দশ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছিলেন। আগা বলেন, তুরস্কে এক সম্মেলনে যোগ দিতে গতকালই ফাদি আল-বাতশের তুরস্ক যাওয়ার কথা ছিল। তার স্ত্রী ও তিন সন্তান রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: