সোমবার, ২১ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
মৌলভীবাজারে জামাতার হাতে শাশুড়ি খুন  » «   রামাদান  » «   রমজানের চাঁদ দেখা যায়নি, শুক্রবার থেকে সিয়াম শুরু  » «   বিশ্বরাজনীতিতে নতুন স্নায়ুুযুদ্ধ  » «   যুক্তরাষ্ট্রে ক্যারিবীয়দের সঙ্গে টি-২০ সিরিজে বাংলাদেশ  » «   মধুচাষে স্বাবলম্বী মৌলভীবাজারের ৪ শতাধিক চাষি  » «   হাওরের ফসলের ন্যায্য দাম মিলছে না  » «   আজ থেকে কলেজে ভর্তির আবেদন, চলবে ২৪ মে পর্যন্ত  » «   ঘরে ঘরে সেহরি পৌঁছে দেবে ড্রোন  » «   কোটার প্রজ্ঞাপনের দাবিতে ফের বিক্ষোভ  » «   গুগল অ্যাসিসট্যান্টে ফোনকলসহ বিভিন্ন ফিচার  » «   শেষ মুহূর্তে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ বাতিল  » «   সাকিবদের আরেকটি দুর্দান্ত জয়  » «   মিয়ানমারের প্রতি নিরাপত্তা পরিষদঃ রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করুন  » «   শপথ নিয়ে ইতিহাস গড়লেন মাহাথির মোহাম্মদ  » «  

ইঞ্জিনিয়ারিং ছেড়ে চা বিক্রি, মাসিক আয় ৫ লাখ!

সিলেট সংলাপ ডেস্কঃ
ভারতের নাগপুরে ইঞ্জিনিয়ারিং ছেড়ে চা বিক্রি করছেন এক দম্পতি। চায়ের প্রতি ভালোবাসা ও নতুন কিছু করে দেখানোর উদ্যমী মনোভাবের কারণেই এখন তারা চা বিক্রেতা। নিতিন বিয়ানি ও তার স্ত্রী পূজা এর আগে মহারাষ্ট্রের পুনে শহরে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। তাদের তখন মাসিক আয় ছিল ১৫ লাখ রুপি।
পাঁচ মাস আগে নাগপুরের সিএ রোডে সামনে ‘চা ভিলা’ নামে একটি চায়ের দোকান খোলেন। চায়ের এই দোকানে ১৫ রকম আলাদা স্বাদের চা পাওয়া যায়। এ ছাড়া বিভিন্ন নাস্তাও বিক্রি করেন তারা। দোকানটির মালিক নিতিন জানান, একজন চা প্রেমিক ইচ্ছা করলে হোয়াটসঅ্যাপ ও জোমাটো অ্যাপ দিয়েও অর্ডার করতে পারবেন। এ ছাড়া প্রতিদিন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক ও হাসপাতালেও চায়ের ডেলিভারি দেওয়া হয়।
নিতিন বলেন, এর মধ্যে আমরা অনেক লোক নিয়োগ করেছি এবং আমাদের যোগাযোগ প্রসারিত করতে চাচ্ছি। আমি গত ১০ বছর ধরে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস মেশিন (আইবিএম) এর মতো বড় বড় কোম্পানিতে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করেছি। তবে আমার স্ত্রী ও আমি নতুন কিছু করায় বেশ উদ্যমী ছিলাম। তাই চায়ের দোকানটি খুলে ফেলি। এখন আমাদের মাসিক আয় পাঁচ লাখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
Share on Facebook4Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: