মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
সিম রেজিস্ট্রেশনে আর কাগজ-কলম লাগবে না  » «   টাইফুন ‘জেবি’র আঘাতে লণ্ডভণ্ড জাপান, নিহত ৯  » «   রোনালদোর বেতন তিন গুণ বেশি!  » «   দ্বিতীয়বার সিলেটের মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন আরিফ  » «   যে নামগুলো পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করবেন না  » «   ট্রাম্পের ‘প্যান্ট’ খুলে দিল যে বই  » «   নিরাপদ সড়ক আন্দোলন: ঘটনাই ঘটেনি, মামলা করে রেখেছে পুলিশ  » «   ‘অ্যাওয়ে গোল’ বাতিল করো, দাবি মরিনহো-ওয়েঙ্গারদের  » «   শহিদুলকে প্রথম শ্রেণির বন্দীর সুবিধা দিতে নির্দেশ  » «   আরপিও সংশোধন নিয়ে নির্বিকার নির্বাচন কমিশন  » «   মাহাথিরের রসিকতায় শ্রোতাদের মধ্যে হাসির রোল!  » «   দেশের বাইরে রান করাটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখি : মুশফিক  » «   দুর্দান্ত জয়ে সিপিএলের শীর্ষে মাহমুদুল্লাহরা  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে বিএনপির ২ দিনের কর্মসূচি  » «   আদালতকে খালেদা জিয়া : ‘আমার অবস্থা খুবই খারাপ’  » «  

অনিয়ম ও দুর্নীতিতে নিজেদের অতীত রেকর্ড নিজেরাই ভঙ্গ করছে : আনু মুহাম্মদ

সিলেট সংলাপ ডেস্কঃ
তেল গ্যাস বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেছেন, ‘সরকার দায়মুক্তি আইন দিয়ে জ্বালানি বিদ্যুৎ খাতে একের পর এক অনিয়ম ও দুর্নীতি বৃদ্ধি করে নিজেদের অতীত রেকর্ড নিজেরাই ভঙ্গ করছে। অনিয়ম ও দুর্নীতির নতুন নতুন রেকর্ড তৈরি করছে, দেশকে অধিক থেকে অধিকতর হারে বিপদগ্রস্ত করছে।
সোমবার গ্রীণ রোডে জাতীয় কমিটির কার্যালয়ে কমিটির এক জরুরী সভায় তিনি একথা বলেন। তিনি আরো বলেন, অনিয়ম ও দুর্নীতির সর্বশেষ দৃষ্টান্ত হিসেবে বাংলাদেশের গ্যাস অনুসন্ধান বাধাগ্রস্ত করে অনেক বেশি দামে এলএনজি আমদানি-র বিভিন্ন প্রকল্প পর্যালোচনা করা হয়। প্রকৌশলী শেখ মুহম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, ‘অযৌক্তিক ও দুর্নীতিগ্রস্ত এসব প্রকল্পের কারণে গ্যাস ও বিদ্যুৎ উভয়েরই দাম বাড়বে, দীর্ঘমেয়াদে শিল্পসহ উৎপাদনশীল খাতের বিকাশ বাধাগ্রস্ত হবে।
সভায় অন্যান্যরা বলেন,, সুন্দরবনের বিপজ্জনক সীমানার মধ্যে রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প ছাড়াও আরো অনেক সুন্দরবনবিনাশী প্রকল্প অনুমোদনের মাধ্যমে সরকার সুন্দরবনকে দেশি বিদেশি লুটেরা গোষ্ঠীর অভয়ারণ্যে পরিণত করছে। সভায় আরও বলা হয়, কোন প্রকার সমীক্ষা না করে দেশের পরিবেশ আইন লঙ্ঘন করে উপকূল রক্ষাকারী বন বিনাশ করে বরগুনা ও পটুয়াখালীতেও কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের অনুমোদন দিয়েছে সরকার।
বড় আকারের দুর্নীতি ছাড়া এ ধরনের চুক্তি হতে পারে না। এর পাশাপাশি রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র গৌরবের নামে দুর্নীতি অনিয়ম ও জননিরাপত্তার জন্য ভয়াবহ হুমকি সৃষ্টিকারী প্রকল্প। সভায় দায়মুক্তি আইন ও পিএসএমপি-২০১৬ বাতিল করে জাতীয় কমিটির প্রস্তাবিত সুলভ পরিবেশ বান্ধব ও টেকসই পথে বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানের আহ্বান জানানো হয়।
সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন টিপু বিশ্বাস, রুহিন হোসেন প্রিন্স, আজিজুর রহমান, আবুল হাসান রুবেল, নজরুল ইসলাম, খালেকুজ্জামান লিপন, ফখরুদ্দিন কবির আতিক, খান আসাদুজ্জামান মাসুম, নাসিরউদ্দীন আহমদ নাসু, মমিনুর রহমান বিশাল, লিয়াকত আলী, সুবল সরকার, সামছুল আলম, মো: আবুল হোসেন, মিজানুর রহমান প্রমুখ। সভায় জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে সরকার গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি, চুক্তি ও পদক্ষেপ পর্যালোচনা করে আগামী ১২ মে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে জাতীয় কমিটির বক্তব্য জনসমুক্ষে উপস্থিত করবার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: