সোমবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব নিলেন আরিফুল হক চৌধুরী  » «   সিম রেজিস্ট্রেশনে আর কাগজ-কলম লাগবে না  » «   টাইফুন ‘জেবি’র আঘাতে লণ্ডভণ্ড জাপান, নিহত ৯  » «   রোনালদোর বেতন তিন গুণ বেশি!  » «   দ্বিতীয়বার সিলেটের মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন আরিফ  » «   যে নামগুলো পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করবেন না  » «   ট্রাম্পের ‘প্যান্ট’ খুলে দিল যে বই  » «   নিরাপদ সড়ক আন্দোলন: ঘটনাই ঘটেনি, মামলা করে রেখেছে পুলিশ  » «   ‘অ্যাওয়ে গোল’ বাতিল করো, দাবি মরিনহো-ওয়েঙ্গারদের  » «   শহিদুলকে প্রথম শ্রেণির বন্দীর সুবিধা দিতে নির্দেশ  » «   আরপিও সংশোধন নিয়ে নির্বিকার নির্বাচন কমিশন  » «   মাহাথিরের রসিকতায় শ্রোতাদের মধ্যে হাসির রোল!  » «   দেশের বাইরে রান করাটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখি : মুশফিক  » «   দুর্দান্ত জয়ে সিপিএলের শীর্ষে মাহমুদুল্লাহরা  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে বিএনপির ২ দিনের কর্মসূচি  » «  

গুগল অ্যাসিসট্যান্টে ফোনকলসহ বিভিন্ন ফিচার

সিলেট সংলাপ ডেস্কঃ
গুগলের তৈরি ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট সেবায় এখন থেকে ফোনকল করার সুবিধা যুক্ত করা হলো। ক্যালিফোর্নিয়ায় গত মঙ্গলবার চলতি বছরের গুগল সম্মেলনে এ ঘোষণা দিলেন প্রতিষ্ঠানটির সিইও সুন্দর পিচাই।
গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই এ সেবা সম্পর্কে জানান, এখন থেকে ফোনে কথা বলে অ্যাপয়েনমেন্টও ঠিক করতে পারবে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট। সম্মেলনে তিনি গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টের ফোন কল করার একটি রেকর্ডিং শোনান। সেখানে একজন সেলুন কর্মীর সঙ্গে কথা বলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট তার ব্যবহারকারীর জন্য সেলুনে যাওয়ার সময় ঠিক করে।কথা বলার ধরণ বেশ স্বাভাবিক হওয়ায় ফোনের অপর প্রান্তে থাকা ব্যক্তি বুঝতেই পারেননি তিনি এআই সাহায্যকারীর সঙ্গে কথা বলছেন। ফোন কলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টকে ‘হুম’ শব্দটিও বলতে শোনা গেছে।
গুগলের তৈরি অ্যাসিস্ট্যান্ট সফটওয়্যারটিকে মূলত ভার্চুয়াল সহকারী বলা হয়। অ্যান্ড্রয়েড চালিত স্মার্টফোন ও স্মার্ট হোম ডিভাইস এটিকে সমর্থন করে। এটি মানুষের সঙ্গে কথোপকথন চালাতে পারে। তবে এখন থেকে এ সেবায় বাস্তবিক ফোনকল যুক্ত হলো। আর কল করার জন্য কোনো নম্বর বা নাম ডায়ালের প্রয়োজন হবে না। এবং কলকারীর ভয়েস পর্যন্ত নির্ণয় করতে পারবে। এছাড়া নানা ভাষার মানুষের কথা বুঝতে পারবে এবং বিভিন্ন দিকনির্দেশনা জানাতে পারবে।
তিনি আরো বলেন, আমরা অনেক দিন ধরে এ প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছি। এটাকে আমারা গুগল ডুপ্লেক্স হিসেবে নামকরণ করেছি। এর ব্যবহারকারীরা ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিক বিভিন্ন সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। যেমন, কোনো ব্যক্তির উপস্থিতি ছাড়াই কল আদান-প্রদান করতে পারবে। এছাড়া ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট করা, মিটিংয়ের শিডিউল, রেস্টুরেন্টের খাবার অর্ডারসহ বিভিন্ন ধরনের আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স সেবা গ্রহণ করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।
গুগলের এই ভয়েস সার্ভিস ভার্চুয়াল সহযোগী হিসেবে আপনার মিটিংয়ের শিডিউল থেকে শুরু করে আবহাওয়া পূর্বাভাস ও ট্রাফিক আপডেট পর্যন্ত বলে যাবে। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি অন্যান্য গুগল হার্ডওয়্যারও কন্ট্রোল করতে পারবে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট।
এ সময় সুন্দর পিচাই আরো বলেন, গুগল অ্যাসিসটেন্ট মানুষের নিত্যদিনের কাজগুলোকে আরো সহজ করে তুলবে এবং এই প্রযুক্তি ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিক কাজকে সহজ করে তুলবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।
ভয়েস কমান্ডনির্ভর গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট মুখের নির্দেশেই কাজ করতে পারবে। কাজের বেলায় আপনার ব্যক্তিগত সহকারীর মতো কাজ করে যাবে গুগলের নতুন এই সেবা এ সেবাটিকে তারা মূলত এআই নির্ভর ডিজিটাল সহকারী হিসেবে অভিহিত করছে।
বর্তমানে এই ভার্চ্যুয়াল সহকারী সফটওয়্যারটি ইংরেজি, ফ্রেঞ্চ, জার্মান, ইতালিয়ান, কোরীয়, স্প্যানিশ ও পর্তুগিজ ভাষা সমর্থন করে। এটি অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মান, জাপান, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রে চালু আছে।
চলতি বছর মোট ৫২টি দেশে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সেবা চালুর ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এ বছর যেসব দেশে অ্যাসিস্ট্যান্ট চালু হতে পারে বলে গুঞ্জন রয়েছে তার মধ্যে রয়েছে রাশিয়া, নেদারল্যান্ডস, সুইডেন, ইতালি, সৌদি আরবসহ আরো বেশ কয়েকটি দেশ। এর মধ্যে হিন্দি ও বাংলা ভাষা ছাড়াও কয়েকটি ভাষা অ্যাসিস্ট্যান্ট সেবায় আসতে পারে।
এর আগে ২০১৬ সালে গুগল ডেভেলপারদের গুগল আই/ও সম্মেলনে এই অ্যাসিস্ট্যান্ট সেবাটি উদ্বোধন করা হয়।
গুগল জানায়, মৌখিক নির্দেশ বোঝাপড়ার ব্যাপারে আমাদের গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট অন্য যেকোনো প্রচলিত ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট থেকে অনেক এগিয়ে। বর্তমানে গুগল সার্চের ২০ শতাংশ হয়ে থাকে ভয়েস সার্চের মাধ্যমে। বিশ্বে এখন পর্যন্ত চালিত সব কণ্ঠভিত্তিক সেবার মধ্যে সবচেয়ে ভালো সেবা দেবে গুগলের এই ভার্চ্যুয়াল অ্যাসিসটেন্ট।
পাশাপাশি নতুন দেশগুলোয় গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সফটওয়্যার চালুর পর গুগল হোম সিরিজ ও স্মার্ট স্পিকারের বিক্রি বাড়বে বলে মনে করছে প্রতিষ্ঠানটি। গুগলের তৈরি এসব যন্ত্র গুগলের সফটওয়্যারটির ওপর নির্ভর করে থাকে। ব্যবহারকারীর নির্দেশ মেনে বিভিন্ন কাজ সম্পাদন করতে পারবে ডিভাইসগুলো।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Email this to someone
email
Print this page
Print

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by: